যেভাবে এনভায়রনমেন্ট তৈরী হয়
আমরা যখন লগইন করি কম্পিউটারে, bash চালু হয় কিছু কনফিগারেশন ফাইল থেকে ঠিক করে নেয় সকল ইউজারের জন্য এনভায়রনমেন্ট কেমন হবে। এই ফাইলগুলো শুরুতে পড়া হয় বলে এদের স্টার্টআপ ফাইল বলে। এরপর bash ইউজারের হোম ডিরেক্টরিতে থাকা আরও কিছু কনফিগারেশন ফাইল পড়ে। কোন ফাইলের পরে কোন ফাইলটি পড়া হবে তা নির্ভর করে শেল সেশনটি কীরকমের তার উপরে। শেল সেশন দুরকম হয়: ক) লগইন শেল ও খ) নন-লগইন শেল
লগইন শেলে শুরুতেই ইউজারনেম ও পাসওয়ার্ড জানতে চাওয়া হয়। আর লগইন করতে না হলে, যেমনটা আমরা হরহামেশাই ব্যবহার করছি সেটা হচ্ছে নন-লগইন শেল।
লগইন শেল এখান থেকে এক বা একাধিক কনফিগারেশন ফাইল পড়ে:
ফাইল
যা থাকে
/etc/profile
একটি কনফিগারেশন ফাইল যা সব ইউজারের উপরে কার্যকর হয়। এজন্য একে গ্লোবাল কনফিগারেশন স্ক্রিপ্টও বলা হয়।
~/.bash_profile
ইউজারের নিজস্ব স্টার্টআপ ফাইল যা তার হোম ডিরেক্টরিতে থাকে। গ্লোবাল কনফিগারেশনকে ইউজারের প্রয়োজন অনুযায়ী আরও পরিমার্জিত বা পরিবর্ধিত করতে এটি ব্যবহৃত হয়। একই জিনিস দুইটি কনফিগারেশন ফাইলে থাকলে এটির থেকে কার্যকর হয়।
~/.bash_login
যদি ~/.bash_profile ফাইলটি না পাওয়া যায় তাহলে এই স্ক্রিপ্টটি পড়ে।
~/.profile
~/.bash_profile বা ~/.bash_login কোনোটাই যদি না পাওয়া যায় তাহলে এটি পড়া হয়।
অন্যদিকে নন-লগইন শেল মাত্র দুটি ফাইল পড়ে:
ফাইল
যা থাকে
/etc/bash.bashrc
নন লগইন শেলের জন্য গ্লোবাল কনফিগারেশন স্ক্রিপ্ট যা সবার জন্য ব্যবহৃত হয়।
~/.bashrc
ইউজারের নিজস্ব স্টার্টআপ ফাইল
একটা নন-লগইন শেল আসলে লগইন এর পরেই পাওয়া যায়। আপনি যখন গ্রাফিকালি লগইন করেন তখনই আপনার লগইন শেল এর কনফিগারেশন ফাইলগুলো পড়ে কার্যকর করা হয়ে যায়। নন-লগইন শেলগুলো আসলে লগইন শেলের চাইল্ড প্রসেস। তাই লগইন শেলের কনফিগারেশনগুলোও এর উপর কার্যকর হয়।

কী থাকে কনফিগারেশন ফাইলে?

আপনি যদি less ~/.bashrc কমান্ডটি ব্যবহার করেন তাহলে নিজস্ব নন-লগইনশেল কনফিগারেশন ফাইলটি দেখতে পারবেন। আপনার ব্যবহৃত ডিস্ট্রিবিউশনের ধরন অনুযায়ী এর হেরফের হবে। যেমন, আমার Ubuntu Gnome 14.04 এর ক্ষেত্রে শুরুর তিন লাইন এরকম:
# ~/.bashrc: executed by bash(1) for non-login shells.
# see /usr/share/doc/bash/examples/startup-files (in the package bash-doc)
# for examples
এর প্রত্যেক লাইনের শুরুতে '#' চিহ্ন আছে। তার অর্থ এগুলো কার্যকর হবে না, এগুলো কমেন্ট। কনফিগারেশন ফাইলের বিভিন্ন অংশের কাজ বোঝাতে কমেন্ট ব্যবহার করা হয়। যেমন আমরা যদি bash history সম্পর্কিত কনফিগারেশন দেখি:
# don't put duplicate lines or lines starting with space in the history.
# See bash(1) for more options
HISTCONTROL=ignoreboth
# append to the history file, don't overwrite it
shopt -s histappend
# for setting history length see HISTSIZE and HISTFILESIZE in bash(1)
HISTSIZE=1000
HISTFILESIZE=2000
প্রথমে দুটি কমেন্ট ও তারপর একটি কমান্ড:
# don't put duplicate lines or lines starting with space in the history.
# See bash(1) for more options
HISTCONTROL=ignoreboth
এখানে বলা হয়েছে ডুপ্লিকেট কমান্ড ও স্পেস দিয়ে শুরু করা কমান্ড হিস্ট্রিতে রাখা হবে না। এবং তারপরের লাইনে এ সম্পর্কিত আরও অপশন দেখতে bash(1) ম্যানুয়াল দেখতে বলা হয়েছে। সবশেষে HISTCONTROL=ignoreboth কমান্ড দিয়ে কাজটি করা হল। একইভাবে হিস্ট্রিসাইজ ও হিস্ট্রিফাইলসাইজ নির্ধারণ করা হয়েছে। এবং বলা হয়েছে যে হিস্ট্রিফাইল ওভাররাইড না করে এ্যাপেন্ড করতে।
Copy link